বিনোদন ডেস্ক: লকডাউন পর্বে সময়ের সদ্ব্যবহার করুন। ভালো ভালো স্ক্রিপ্ট লিখুন। ইন্ডাস্ট্রিতে পরিচালকদের ভালো চিত্রনাট্যকার দরকার-এমন মন্তব্যই করলেন বলিউড সুপারস্টার আমির খান। নবাগত স্ক্রিপ্ট রাইটারদের আরো বেশি বেশি করে চিত্রনাট্য লেখায় মন দেওয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি। আমিরের ভাবনা অবশ্য বরাবরই ‘আউট অফ দ্য বক্স’। তাই এই অলস সময়কেও সৃজনশীলতার কাজে লাগানোর পরামর্শ দিয়েছেন অভিনেতা।

ব্যস্ততার জন্যে এতদিন আমরা অনেক কাজই করতে পারিনি। তবে লকডাউনের এই গৃহবন্দি জীবন আমাদের অনেক কিছুই শিখিয়েছে। যে কাজগুলোর জন্য আমরা এতদিন সময় পেতাম না, সেগুলো অবাধভাবে করার সুযোগ পাচ্ছি বর্তমানে।

আর আমির খান বাড়ি বসে থাকা এই অলস সময়টাকেই যথাযথ কাজে লাগানোর পরামর্শ দিয়েছেন চিত্রনাট্য লেখার জন্য। তার কথায়, লেখা ছেড়ে দিলে চলবে না। আরও প্র্যাকটিস করতে হবে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বলিউডের ‘সিনেস্তান’ সংস্থার তরফে এক অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। গৃহবন্দি জীবনের একঘেয়েমি কাটাতে স্ক্রিপ্ট রাইটারদের জন্য এক প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিল। সেই প্রতিযোগিতারই বিচারক প্যানেলে ছিলেন আমির খান। ‘সিনেস্তান’-এর চিত্রনাট্য লেখার প্রতিযোগিতায় মোট পাঁচ জনকে বেছে নেওয়া হয়েছে বিজয়ী হিসেবে। তবে যারা জিততে পারেননি, তাদের কথা ভেবে অনুপ্রেরণা যোগানোর জন্য আমির খান এক ভিডিও প্রকাশ করেছেন। সেখানেই বলিউড অভিনেতাকে বলতে শোনা গেল, এই পাঁচজনের মধ্যে যাদের নাম উঠে আসেনি, তাদের কিন্তু হাল ছাড়লে চলবে না! বরং আরো নিষ্ঠা নিয়ে উৎসাহের সঙ্গে নতুন নতুন চিত্রনাট্য লেখা উচিত। বিশেষ করে এই গৃহবন্দি জীবনে। লেখা থামালে চলবে না। কারণ, প্রত্যেক পরিচালকেরই একজন ভালো চিত্রনাট্যকারের প্রয়োজন হয়।

সম্প্রতি ‘সিনেস্তান’ সংস্থার তরফে আয়োজিত স্ক্রিপ্ট রাইটিং প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। আমির খান ছাড়াও বিচারকদের প্যানেলে ছিলেন পরিচালক তথা প্রযোজক রাজকুমার হিরানি, অঞ্জুম রাজাবলী এবং জুহি চতুর্বেদী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here