ঈশ্বরদীতে সেভেনআপ মনে করে কীটনাশক পানে দুই সহোদর বোনের মর্মান্তিক মৃত্যু

0
326

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনা :

ঈশ্বরদীতে সেভেনআপের বোতলে রাখা কীটনাশক ভুল করে পান করে রাহিমা খাতুন (৮) এবং খাদিজা খাতুন (৪) নামে আপন দুই বোনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিজ বাড়িতে মারা যায় রাহিমা এবং বুধবার রাতে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন খাদিজার মৃত্যু হয়। তারা ঈশ্বরদী পৌর এলাকার অরণকোলা গ্রামের অটোরিক্সা চালক বাবু মন্ডলের মেয়ে।

নিহত দুই বোনের চাচা মানিক জানান, মায়ের সাথে গত মঙ্গলবার তিন বোন খাদিজা, রাহিমা ও ঋতু খাতুন দাশুড়িয়ার আথাইলশিমুল গ্রামে তাদের নানা বাড়িতে বেড়াতে যায়। তাদের মামা রোকন উদ্দিন ক্ষেতের আগাছা পুড়িয়ে মারার জন্য ওইদিন তার ঘরের টেবিলে একটি সেভেনআপ-এর বোতলে কীটনাশক রেখে বাইরে যান। এ সময় সেভেন আপের বোতল ভেবে ওই কীটনাশক গ্লাসে ঢেলে পান করে তিন বোনসহ আরো কয়েকজন শিশু।
বড়রা সামান্য পান করে উটকো গন্ধের কারণে বমি করে দিলেও ছোট্ট খাদিজা ওই কীটনাশকের বিষক্রিয়ায় নিস্তেজ হয়ে পড়ে।

তিনি আরও  জানান, খাদিজাকে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে নেয়া হয়। সেখান থেকে খাদিজাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে অবনতি হলে তাকে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই গতকাল রাতে তার মৃত্যু হয়।
বৃহস্পতিবার বিকেলে নিজ বাড়িতে মারা যায় মেজ বোন রাহিমা খাতুন।

ঈশ্বরদী পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আবুল হাসেম বলেন, আপন দুই বোনের মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here