এনজিও’র কিস্তির চাপে ড্রিল মেশিনে গলা কেটে রডমিস্ত্রির আত্মহত্যা

0
172

ষ্টাফ রির্পোটার: 

বগুড়ার শাজাহানপুরে কিস্তির চাপ সহ্য করতে না পেরে বেলাল হোসেন (২৮) নামে এক রডমিস্ত্রি আত্মহত্যা করেছেন।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তিনি মারা যান। নিহত বেলাল হোসেন উপজেলার চোপীনগর ডাক্তারপাড়ার লুৎফর রহমানের ছেলে। তিনি স্থানীয় একটি ওয়েলডিং ওয়ার্কসপে রডমিস্ত্রির কাজ করতেন।

জানাগেছে, বেলাল হোসেন রডমিস্ত্রির কাজ করে অভাবের সংসার চালাতেন। তার সংসারে সাত বছরের একটি কন্যা ও ছয় মাস বয়সের একটি কোলের পুত্র সন্তান রয়েছে। বেলাল হোসেন অভাবের সংসার চালাতে গিয়ে ফোকাস সোসাইটি, সোসাইটি ফর সোস্যাল সার্ভিস সহ স্থানীয় বেশ কয়েকটি এনজিও সংস্থা থেকে কিস্তিুর উপর ঋণ নিয়েছেন।

করোনাকালিন সময়ে রোজগারের পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কিস্তি চালাতে পারছিলেন না। ঋণের চাপে দিশেহারা ছিলেন তিনি।

এছাড়া ফোকাস সোসাইটি থেকে পুনরায় ঋণ নেয়ার জন্য পূর্বের কিস্তি শোধ করার চেষ্টায় ছিলেন। এনিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা মনোমালিন্য হয়। একপর্যায়ে বেলা ৩টার দিকে নিজ ঘরে সবার অজান্তে কীটনাশক পান করে বেলাল হোসেন। একই সাথে রড কাটার ইলেকট্রিক মেশিন চালু করে নিজের গলা কেটে ফেলেন। এসময় তার চিৎকারে স্বজনরা দৌড়ে এসে গুরুতর আহত অবস্থায় বেলালকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ

হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে চিকিৎসাধিন অবস্থায় বেলাল হোসেন মারা যান।

শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দীন জানান, থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের করে স্বজনদের হাতে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here