থানা পুলিশের গড়িমসি, ধুনটে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখল

0
511

ধুনট(বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার ধুনটে আদালতের আদেশ অমান্য করে মেরাজলু ইসলাম নামের এক ব্যক্তি ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে দিন দপুরে ৫৫ শতক জমি জবর দখল করেছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। যে কোন সময় আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার নাংলু গ্রামে।

নাংলু গ্রামের মৃত নবীর উদ্দিনের ছেলে হেলালুর রহমান জানান, ধুনট উপজেলার নাংলু মৌজার ২১৭ সিএস ৩৭৩ নং এম আর আর খতিয়ান খতিয়ান ভুক্ত ১৭৪৮ সাবেক ও ৩৩৬৫ নং হাল দাগের ৫৫ শতক জমি তারা ৫ ভাই ১৯৯৪ সালে দলিল মুলে একই গ্রামের ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী ঝর্না খাতুনের নিকট ক্রয় করে দির্ঘ দিন থেকে ভোগ দখল করে আসছেন। ওই ৫৫ শতক জমি থেকে ২৫ শতক একই গ্রামের মৃত ভুল প্রামানিকে ছেলে মেরাজুল ইসলাম ২০১০ সালে ঝর্না খাতুনের নিকট থেকে ভয়া দলিল সৃষ্টি করে জবর দখলের চেষ্টা করেন। এতে আমি বাদী হয়ে বগুড়ার জেলার ধুনট সহকারী জজ আদালতে ঝর্না ও মেরাজুল সহ ৫ জনকে বিবাদী করে (৬৬/২০০৮) একটি মামলা দায়ের করি। আদালত চলতি বছরের ৯ মার্চ মামলা নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ওই সম্পত্তিতে অনুপ্রেবেশ সহ বাদীর দখলে বিঘ্ন সৃষ্টি হতে বিবাদীদের প্রতি নিষেধাজ্ঞার আদেশ দেন।

আদালতের আদেশ অমান্য মেরাজুল সন্ত্রাসী কায়দায় আামদের জমি দখলের চেস্টা করায় আমি গত ১৫ জুলাই আদালতের আদেশের কপি সহ ধুনট থানায় একটি অভিযোগ দেই। ভুমি দস্যু মেরাজুলের বিরুদ্ধে থানা পুলিশ কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় আদালতের আদেশ আমান্য করে সোমবার দিন দুপুরের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে আস্ত্রের মুখে আমাদের জিম্ম করে জমি জবর দখল করে রোপা আমন ধানের চারা রোপন করেছে।

ফলে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের বিষয়টি নিয়ে এলাকায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে মেরাজুলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে রাজি হননি।

ধুনট থানার ওসি (তদন্ত) জাহিদুল হক বলেন, হেলালুর রহমানের অভিযোগ পাওয়ার পর আমি মেরাজুলকে থানায় ডেকে জমিতে যেতে নিষেধ করেছিলাম। কিন্ত মেরাজুল আদালত ও থানা পুলিশের আদেশ অমান্য করে জমি দখল করার বিষয়টি শুনেছি। এখন তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here