বিনোদন ডেস্ক: গান গেয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কল্যাণে রাতারাতি আলোচনায় চলে আসেন রানু মন্ডল। এরপর তাকে নিয়ে অনেক বিতর্ক এবং সমালোচনাও হয়েছে। তবে করোনার এই দুর্যোগে দুস্থদের পাশে দাঁড়িয়েছেন এই গায়িকা। এলাকার গরিব-দুস্থদের চাল,ডাল দিয়ে সাহায্য করছেন। নিজের বাড়িতে থেকেই সবাইকে তা বিতরণ করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে রানু মন্ডল জানান, সৃষ্টিকর্তা তাকে অনেক সাহায্য করেছেন। তাই মহামারির এই সময়ে তিনিও মানুষের পাশে দাঁড়াতে চান।
তিনি বলেন, যেখানে ভালোবাসা, সেখানেই সৃষ্টিকর্তা। মানুষের সততার ফল কখনো বৃথা যায় না। ভালো কাজ করলে তার সুফল একদিন পাবেই। আমি চেষ্টা করছি অসহায় মানুষের পাশে  দাড়াতে। কারণ এই করোনার সময়ে তারা ভালো নেই। অনেকেই খাবারের অভাবে রয়েছেন। আমি তাদের কিছু খাবার দেয়ার চেষ্টা করছি। যতদিন পারি সহযোগিতাটা করে যেতে চাই। সবাই দোয়া করবেন আমার জন্য। কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকরের ‘প্যায়ার কা নাগমা’ গানটি গেয়ে রাতারাতি সামাজিক যোগযোগমাধ্যমে আলোচিত হন রানু মন্ডল। পশ্চিমবঙ্গের রানাঘাট স্টেশন চত্বরে ছিল তার বাস। কিন্তু সেখান থেকে সুযোগ পান বলিউডে। হিমেশ রেশমিয়ার ‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হির’ সিনেমার ‘তেরি মেরি কাহানি’ গানে কণ্ঠ দিয়ে বেসগ খ্যাতি পান রানু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here