ধুনটের নিজ গ্রামে সংবর্ধনায় ভুষিত হলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব গৌতম কুমার

0
296

গিয়াস উদ্দিন টিক্কা, স্টাফ রিপোর্টার:

বগুড়ার ধুনটের সরকার পাড়া নামক নিভৃত পল্লী নিজ গ্রামে গন সংবর্ধনায় ভুষিত হলেন গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব গৌতম কুমার সরকার। বাৎসরিক দুর্গা পুজায় গ্রাম বাসীর সাথে আনন্দে মেতে উঠতে তিনি গত ২৪ অক্টোবর রাজধানী থেকে গ্রামে আসার পর গ্রামবাসী তাকে এই সংবর্ধনার আয়োজন করেন।

অতিরিক্ত সচিব গৌতম কুমার সরকার জানান, গ্রামের বেড়ে ওঠা অন্যান্য সহপাটিদের মতো তিনি ধুনট ধুনট এন ইউ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাশ করার পর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি( অনার্স), এলএলএম পাশ করে বগুড়া জজ কোর্টে ৫ বছর আইন পেশায় নিযুক্ত হন। আইন পেশার পাশাপাশি তিনি সাংবাদিক ও বগুড়া থেকে প্রকাশিত “সাপ্তাহিক নোতুন খবর” পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক ছিলেন । তিনি ১৯৯৩ সালে বিসিএস ( প্রশাসন) ক্যাডারের কর্মকর্তা, চাকুরীতে যোগদান করেন। ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে কুষ্টিয়া, কক্সবাজার, টাংগাইলে দায়িত্ব পালন করেন এবং ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, নওগাঁ, রংপুরের বিভিন্ন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও ) হিসাবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। মাঠ প্রশাসনে চৌকস কর্তকর্তা ও প্রতিকুল পরিস্থিতিতে নিরপেক্ষভাবে কাজ করায় পদন্নোতি পয়ে তিনি প্রথমে উপসচিব, যুগ্মসচিব এবং সর্বশেষে অতিরিক্ত সচিব হিসেবে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ে দায়িত্ব পালন করছেন।

গৌতম কুমার সরকারকে একজন দক্ষ কর্মকর্তা হিসাবে গড়ে তুলতে সরকারী খরচে অষ্ট্রেলিয়া, ভারত, তাঞ্জানিয়া, উগান্ডা, কেনিয়া চীন, কোরিয়া, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া থেকে উচ্চতর প্রশিক্ষন গ্রহন করেছেন। উত্তর জনপদ থেকে প্রশাসনের উচ্চপদে অধিষ্ঠিত কর্মকর্তা গৌতম কুমার সরকারকে নিয়ে ধুনটবাসী খুব গর্বিত। সরকারের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে অতিরিক্ত সচিব গৌতম কুমার জীবনের শেষদিন পর্যন্ত দেশ ও জাতির কল্যানে নিজেকে নিয়োজিত রাখার অঙ্গিকার ব্যাক্ত করে বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি শতভাগ অনুগত থেকে সরকারের অনুশ্রিত নীতির বাস্তবায়ন এবং উন্নয়ন কর্মকান্ডে একজন কর্মী নিজেকে নিয়োজিত রাখার শপথ পুনঃব্যক্ত করেন। তার প্রতি শ্রদ্ধা ভালোবাসা ও ফুলেল শুভেচ্ছার জন্য ধুনট সরকার পাড়া বাসি তথা উত্তর জনপদের সকল জনমানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন। গৌতম কুমার একজন পেশাদার আমলা হিসাবে সরকারী আদেশ বাস্তবায়নের পাশাপাশি সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে অবদান রেখেছেন। তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশন এবং বাংলাদেশ বেতারের নিয়মিত লোক সংগীত শিল্পী হিসাবে সংগীত পরিবেশন করে আসছেন। তিনি কুষ্টিয়ার লালন একাডেমির পরিচালক ( সংগীত) হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। তার গাওয়া ২০ টি লালনগীতির ২ টি এ্যলবাম প্রকাশিত হয়েছে। গত শনিবার দুপুরে নিজ গ্রাম ধুনট সরকার পাড়া সর্বজনীন দুর্গা মন্দিরের সামনে অতিরিক্ত সচিব গৌতম কুমারকে গনসংবর্ধনা দেওয়া হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সমির কুমার ঠাকুর, শ্রমিক নেতা ভানুসেন, সাবেক পৌর কমিশনার সুধির কুমার, ইন্দ্রোজিত সরকার সহ গ্রামের সর্বস্তরের মানুষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here