ধুনটে বাকপ্রতিবন্ধি এক নারীকে ধর্ষন, থানায় মামলা

0
225

স্টাফ রিপোর্টার:

বগুড়ার ধুনটে বাকপ্রতিবন্ধি স্বামী পরিত্যক্তা এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে আবুল কালাম নামের এক কাঠমিস্ত্রী বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আবুল কালাম উপজেলার উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়নের গোপালনগর গ্রামের মোকবুল হোসেনের ছেলে ।

থানা সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের জনৈক এক দিন মুজুরের মেয়ে মেয়েটি বাকপ্রতিবন্ধি হওয়ার কারনে স্বামী প্ররিত্যক্তা হয়ে বাবার বাড়িতে থাকতেন। বাকপ্রতিবন্ধী ওই নারীর (২৬) বড় ভাইয়ের সাথে বন্ধু আবুল কালামে বন্ধুত্ব সম্পর্ক ছিল। বন্ধুর সম্পর্কের সুত্র ধরে আবুল কালাম বাকপ্রতিবন্ধি ওই নারীর বাড়িতে যাতায়াত করতো বলে এলাকাবাসী জানায়। বৃহস্পতিবার রাতে ওই নারীর বড় ভাই বাড়িতে না থাকার সুযোগে আবুল কালাম বাকপ্রতিবন্ধী ওই নারীর ঘরে ঢুকে জোরপুর্বক ধর্ষন করতে থাকে। এ সময় পাশের ঘর থেকে বাকপ্রতিবন্ধি ওই নারীর গোংরানির শব্দ শুনে তার মা জাগা পেয়ে আবুল কালামকে আটকের চেষ্টা করে। ধর্ষক মা ও মেয়েকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে পরের দিন শুক্রবার গ্রাম্য মাতব্বরা আপোষ মীমাংসার বৈঠক বসেন । বৈঠকে আপোষ না হওয়ায় আবুল কালাম পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে শুক্রবার রাত ৯টার দিকে ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়নের নারী সদস্য সুলতানা জাহান ধর্ষনের স্বীকার ওই নারী ও তার মাকে সাথে নিয়ে ধুনট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, ধর্ষক আবুল কালামকে গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চালানো হচ্ছে এবং ধর্ষনের শিকার বাকপ্রতিবন্ধী ওই নারীর ডাক্তরী পরীক্ষার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here