ধুনটে ভুয়া কাজী বিরুদ্ধে ব্যাল্য বিয়ে রেজিষ্ট্রি সহ নানা অভিযোগ

0
190

ধুনট(বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার ধুনটের গোপালনগর ইউনিয়নের আবু সাঈম নামের (নিকাহ রেজিষ্ট্রার)এক ভুয়া কাজীর বিরুদ্ধে বাল্য বিয়ে রেজিষ্ট্রি সহ নানা অনৈতিক কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগ উঠেছে।

এলাকাবাসী ওই কাজীকে গ্রেফতারের দাবীতে ধুনট উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
গোপালনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন সরকার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ২০১৬ সালে গোপালনগর ইউনিয়নের নিকাহ/তালাক রেজিষ্ট্রার মতিয়ার রহমান ওরফে মতি কাজি দৃর্বত্তদের হাতে খুন হন। এরপর পাশ্ববর্তী চৌকিবাড়ি ইউনিয়নের নিকাহ/ তালাক রেজিষ্ট্রার মাওলানা রেজাউল করিমকে ভারপ্রাপ্ত কাজী হিসাবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। পরবর্তীতে গোপাল নগর ইউনিয়নে (নিকাহ/তালাক রেজিষ্ট্রার) কাজীর পদ শুন্য ঘোষনা করে কাজী নিয়োগ প্রদানের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হয়। চেয়ারম্যান আরো জানান ,নিয়োগ বিজ্ঞপ্তী প্রকাশ না হওয়া এবং নিয়োগ কার্যক্রম সম্পন্ন না হলেও একই ইউনিয়নের চকডাকাতিয়া গ্রামের মোতাল্লিব হোসেনের ছেলে আবু সাঈম ভুয়া কাজি সেজে বাল্য বিয়ে রেজিষ্ট্রি তালাক প্রদান সহ নানা অনৈতিক কার্যক্রম পরিচালনা শুরু করার একাধিক অভিযোগ পাওয়া গেছে। কাজী আবু সাঈম তার বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। একই ইউনিয়নের আব্দুল আলীম ভুয়া কাজী বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সঞ্জয় কুমার মোহন্ত অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here