ফ্যাক্ট করোনা ভাইরাস; স্ট্যাটাস আবেগময়

0
286

একে আজাদঃ

স্ট্যাটাস;

বাড়ি ফেরা হবে নাকি জানি না। করোনা আক্রান্ত হয়েএ যদিও মারা যায় কোম্পানির কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন। লাশটা ফ্যামিলিকে বুঝে দিয়ে সামনে থেকে দাফন করে দিয়ে আসবেন। কারণ আমরা মধ্যবিত্ত ফ্যামিলির ছেলে।আমাদের লাশ ফ্যামিলি না দেখতে পারলে কলিজা ফেটে এমনি তারা মারা যাবে এতে আর কোন মহামারীর দরকার হবে না। আর মহামারী করোনা ভাইরাসে মৃত্যু হলে তো কোন কথা নেই পাশে কেউ থাকবে না দাফন করার জন্য। কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি 😭😥😓
#তুমি কি জানো না #মা অনির্দিষ্ট কালের জন্য তোমার ছেলের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।
যাদের দেখে ডাক্তার রা পর্যন্ত ভয়ে দূর থেকে কথা বলে,,,আজ তোমার সেই ছেলেটি তাদের ভিড়ে দোকানে দোকানে ঘুরে বেড়াচ্ছে ভ্যানগাড়ি ঠেলছে মানুষের কাছে খাদ্য পৌঁছে দেবার জন্য আর তোমার ছেলের চাকরিটাও তো খুব দরকার মা।
তোমার ছেলেটি দেশের জন্য নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে,, নিজে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।
তুমি কি দেখেছো মা,এই রোগের আক্রান্ত ব্যাক্তির মৃত্যুর পর নিজের পরিবারের কেউ যাইনি দাফন দিতে,,,নিজের কথা চিন্তা না করে গিয়েছে তোমার ছেলে,,,
মা খুব ইচ্ছে করে একটিবার তোমার চরণতলের সেই জান্নাত টি স্পর্শ করতে। জানি না আর স্পর্শ করা হবে কি না। দোয়া করিও মা,,তোমার সেই ছেলেটি দেশের জন্য এবং দেশের মানুষের জন্য এক মরন যুদ্ধে নেমেছে। কোম্পানিগুলোর কাছে বিশেষ অনুরোধ আমাদের মধ্যবিত্ত বিক্রয়কর্মীর লাশটাকে ফ্যামিলির কাছে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করবেন প্লিজ’ আমরা অসহায়’ আমরা মধ্যবিত্ত”আমরা পাবোনা কোন ত্রাণ’ আমরা পাবোনা সাহায্য’ আমরা পাবোনা চিকিৎসা”আমরা শুধু সেবাই করে যাব।
সবার প্রতি অনুরোধ কোনো ভুল
করে থাকলে ক্ষমা করে দিবেন,,,
প্লিজ
আপনি আপনার পরিবারের জন্য ঘরে থাকুন
আমরা আপনার জন্য বাইরে আছি।
ঘরে থাকুন
নিরাপদে থাকুন
সুস্থ থাকুন
সামাজিক দূরুত্ব বাজায় রাখুন ..
ইতি= এক মধ্যবিত্ত পরিবারের বিক্রয় প্রতিনিধি,,

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here