বগুড়ায় অসহায়দের ঘরে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন সমাজসেবক মাহবুব হাসান চমক

0
262
বগুড়া শহরের ছোট বেলাইল ও ছিলিমপুর এলাকায় সোমবার বিকেলে প্রায় শতাধিক কর্মহীন ও অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও তরুণ সমাজসেবক মাহবুব হাসান চমক।
নিজস্ব প্রতিবেদক:
কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ইতিমধ্যেই বগুড়াসহ সারাদেশে প্রতিকূল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। সাধারণ ছুটি বা অঘোষিত লকডাউনের জেরে খেঁটে খাওয়া মানুষগুলো কর্মহীন হয়ে এখন নিজ নিজ ঘরে অবস্থান করছে। এমন অবস্থায় সরকারী নানামুখী কর্মসূচীর পাশাপাশি এলাকাভিত্তিক এগিয়ে এসেছে বিভিন্ন মানবিক ব্যক্তিবর্গ যার মাঝে করোনা দুর্যোগ মোকবেলায় শুরু থেকে কাজ করে যাওয়া তিনমাথার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও তরুণ সমাজসেবক মাহবুব হাসান চমক অন্যতম। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণ এবং সাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতামূলক কর্মকান্ডের পরবর্তীধাপে বর্তমানে নিজস্ব উদ্যোগে ভিড় এড়িয়ে সাধারণ অসহায় এবং কর্মহীণ মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে সপ্তাহব্যাপী খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন মানবিক এই তরুণ সমাজসেবক। যার ধারাবাহিকতায় সোমবার বিকেলে বগুড়ায় তিনমাথা ছোট বেলাইল এবং ছিলিমপুর এলাকায় প্রায় শতাধিক কর্মহীন ও অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন তিনি। খাদ্যসামগ্রীস্বরুপ প্রতিটি পরিবারের জন্য নিজস্ব উদ্যোগে ৪ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ লিটার তেল, ১ কেজি পেঁয়াজ, আলু, সাবান এবং সবজি বিতরণ করেছেন মিলন মটরস্ এর সত্ত্বাধিকরী এবং তিনমাথা যুব সমৃদ্ধি ক্লাবের সভাপতি তরুণ এই মানবিক নেতা। এসময় উপস্থিত ছিলেন তার ভাতৃদ্বয় বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মিনহাজ আহমেদ চয়ন এবং মেজবাউর রহমান চয়েস। দেশের এই ক্রান্তিকাল মোকাবেলার বিষয়ে মাহবুব হাসান চমক বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সকলকে ঘরে থেকেই যুদ্ধ করতে হবে। সচেতনতা এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং সরকারী সকল নির্দেশনা মেনে চলার মাধ্যমে এই বিপদ থেকে আমাদের মুক্ত হতে হবে। তবে সমাজের সামর্থ্যবান সকলকে দেশের এই ক্রান্তিকালে আশেপাশের অসহায় এবং কর্মহীন মানুষের পাশে মানবিকভাবে দাঁড়ানোর উদ্বার্ত আহব্বান জানান তিনি। সেই সাথে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সামর্থ্য অনুযায়ী তার মানবিক এই সহযাগিতা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তরুণ এই যুব সংগঠক।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here