নিজস্ব প্রতিবেদক: বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার ময়দানহাটা ইউনিয়নের দাড়িদহ গ্রামে করোনা ভাইরাসের উপগর্স নিয়ে এক ব্যক্তির মৃতু হয়েছে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকালে ওই গ্রামের ১৫টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।
আইইডিসিআর কর্তৃপক্ষ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের প্যাথলজি বিভাগের মাধ্যমে নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানোর হয়েছে।
আজ শনিবার (২৮মার্চ) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়।
স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানাগেছে, ঢাকায় এক বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ৪৫ বছর বয়সি এক ব্যক্তি গত মঙ্গলবার ঢাকা থেকে বগুড়ার শিবগঞ্জে তার শশুর বাড়ি বেড়াতে আসেন। এসময় সর্দি-কাশি এবং গায়ে জ্বর ছিল।
শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার অসুস্থতার খবর শুনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে একজন চিকিৎসক পাঠানো হয় তার কাছে। ওই ব্যক্তির বাড়িতে গিয়ে তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।
শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তারকনাথ কুণ্ডু জানান, একজন স্বাস্থ্যকর্মীকে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে অসুস্থ্য ওই ব্যক্তির বাড়িতে পাঠানো হয়। কিন্তু ওই স্বাস্থ্যকর্মী তার বাড়িতে গিয়ে তাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়।
শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আলমগীর কবির জানান, মারা যাওয়া ওই ব্যক্তির যেহেতু করোনার উপসর্গ ছিল। এজন্য সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে ওই গ্রামের ১৫টি বাড়ি লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া তার নমুনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
বগুড়ার সিভিল সার্জন ডা. গাওসুল আজিম চৌধুরী জানান, আইইডিসিআর কর্তৃপক্ষ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের প্যাথলজি বিভাগের মাধ্যমে নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে। রিপোর্টের প্রতিবেদন না আসা পর্যন্ত বলা যাবেনা যে করোনায় আক্রান্ত ছিল। তবে করোনার উপসর্গ প্রাথমিক ভাবে প্রতিয়মান হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here