বগুড়ায় ক্ষোভে ফুঁসছে দলের কর্মীরা, ২টি ওয়ার্ডে অস্বচ্ছলদের ত্রান বিতরণ

0
708

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জিয়া পরিবারের জন্য দোয়া চেয়ে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করেছেন জেলা যুবদলের সাবেক নেতৃবৃন্দরা। বিগত আন্দোলনে দলের নিহত, অসহায় নির্যাতিত, নিপিড়ীত কর্মীদের ও তাদের পরিবারের মাঝে নিত্যপ্রয়োজনিয় সহায়তা দিতে লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় ২১টি ওয়ার্ডে বিএনপি-যুবদলের কর্মহীন ও অসচ্ছল কর্মীদের পরিবারের মাঝে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হচ্ছে।

করোনা পরিস্থিতিতে সংকটেপড়া ও পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে দলীয় কর্মীদের ইতিমধ্যে নিজ অর্থায়নে অার্থিক সহায়তা ছাড়াও, নিত্যপ্রয়োজনিয় সামগ্রী ৯, ১৫, ৭, ১৮, নং ওয়ার্ডে ত্রাণ বিতরন করেছেন, জেলা বিএনপির সাবেক প্রচার সম্পাদক ও সাবেক যুবদল সভাপতি কাউন্সিলর সিপার আল বখতিয়ার।

এদিকে শনিবার দুপুরে ৪ ও ৫ নং ওয়ার্ডে ত্রান নিতে আসা এক কর্মীর পরিবারের সদস্য শ্রীমতি বিলাসী রানী ক্ষোভ ঝেড়ে বলেন, এখন পর্যন্ত কোন নেতা আমাদের খোঁজ খবর নেয়নি। এরা বিএনপির সুসময়ে দুই হাতে কামায়, এখন ঘড়ে ঢুকে বসে আছে।

আবেদ আলী রাগ করে বলেন, দলের দুঃসময়ে আমরা জিবন বাজি রাখি, ছোলপোল জেল খাটে, আর বিএনপির বড় বড় নেতাদের বাড়িতে গিয়েও ডেকে পাইনা। এরাই দলকে ডুবিয়ে দিচ্ছে।
সাগর নামে এক কর্মী বলেন, ভাই ফটোসেশান করে এরা দলের বার বাজিয়ে দিল, নেতা হলো সিপার ভাই, তাকে দেখে আর নেতাদের লজ্জা পাওয়া উচিত। সব ওয়ার্ডে নেতাকর্মীদের সহায়তা দিচ্ছে।


  1. খোজ নিয়ে সরজমিনে গিয়ে জানা গেছে, করোনা পরিস্থিতিতে ও ঈদ উপলক্ষে দলের কর্মীরা তেমনভাবে সহায়তা পাচ্ছেনা। প্রায় প্রতিটি এলাকায় বিএনপির নেতাদের ওপর ক্ষোভে ফুঁসছে দলের ত্যাগী কর্মীরা।

সিপার প্রদত্ত ত্রানসামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন, জেলা যুবদলের সাবেক সহ- সভাপতি রাফিউল ইসলাম রুবেল, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুকুল ইসলাম ফারুক, যুবদলের সাবেক সভাপতি মাসুদ রানা, জুম্মান আলী, জিতু, শাফিন, মহররম হোসেন টপিন, মমি, সঞ্জয়, বাদল, বাপ্পি, রাজিব, মোমিন, প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here