স্টাফ রিপোর্টার: কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ইতিমধ্যেই বগুড়াসহ সারাদেশের অধিকাংশ জেলাকেই লকডাউন বা অবরুদ্ধ ঘোষনা করা হয়েছে যার দরুণ কর্মহীন হয়ে পরেছে হাজারো খেঁটে খাওয়া সাধারণ মানুষ।

জীবন বাঁচাতে যখন তারা গৃহবন্দী হয়ে আছে তখন পেটের ক্ষুধায় দুশ্চিন্তাতেও ভুগতে হচ্ছে নিম্নবিত্ত থেকে শুরু করে মধ্যবিত্ত পরিবারের অনেককে। এমন অবস্থায় সরকারের নানামুখী কার্যক্রমের পাশাপাশি বগুড়ায় এগিয়ে এসেছে অনেক মানবিক ব্যক্তিত্ব যার মাঝে করোনা দুর্যোগ মোকাবেলায় শুরু থেকে কাজ করে যাওয়া তরুণ ব্যবসায়ী এবং মানবিক ব্যক্তিত্ব মাহমুদ রহমান অন্যতম। নিজস্ব উদ্যোগে ভিড় এড়িয়ে সাধারণ অসহায় এবং কর্মহীণ মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে সপ্তাহব্যাপী খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন মানবিক এই তরুণ।

যার ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সকালে শহরের চেলোপাড়া মধুবন সিনেপ্লেক্স প্রাঙ্গণে বগুড়া ইয়ূথ ফোরামের সভাপতি এবং সাংবাদিক সঞ্জু রায়ের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সামাজিক দূরত্ব মেনে প্রায় শতাধিক কর্মহীন ও অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছেন তিনি। করোনার প্রভাবের পাশপাশি মাহে রমজান উপলক্ষে খাদ্যসামগ্রীস্বরুপ প্রতিটি পরিবারের জন্য নিজস্ব উদ্যোগে মাহমুদ প্রদান করেছেন ১০ কেজি কেজি চাল, ২ কেজি ডাল, ২ লিটার তেল, ১ কেজি পেঁয়াজ, ২ কেজি আলু, ১ কেজি চিনি, লবণ, ১ কেজি বুট, ১ কেজি মুড়ি সহ অন্যান্য খাদ্যসামগ্রী।

বিতরণকালে এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রশান্ত দাস, মো: নাইস, ইয়ূথ লিডার নিরব রায় প্রমুখ। উক্ত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে দিনমজুর, রিক্সা-ভ্যান চালক, কর্মহীন পরিবার এবং মধ্যবিত্ত পরিবারের সদস্যসহ শুক্রবার পর্যন্ত প্রায় ৫ শতাধিক মানুষের মাঝে ইতিমধ্যেই খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছেন মাহমুদ। দেশের এই ক্রান্তিকালে তিনি সাধারণ মানুষকে বিশেষভাবে সচেতন এবং সরকারী সকল নির্দেশনা মেনে চলার উদ্বার্ত আহব্বান জানান। সেই সাথে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সামর্থ্য অনুযায়ী তার মানবিক এই সহযাগিতা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান মাহমুদ রহমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here