বগুড়া শাজাহানপুরে শিশু কণ্যা ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তি গ্রেপ্তার 

0
482

স্টাফ রিপোর্টার

বগুড়া শাজাহানপুর থানার পলিপলাশ গ্রামে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণের মামলায় রফিকুল ইসলাম (৫০)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার  (১৮মে)  বিকের আড়াইটার দিকে শাজাহানপুর থানাধীন পলিপলাশ গ্রামে আসামী রফিকুলের বাড়ির আঙ্গিনায় খেলা করছিল ৬ বছর বয়সী কন্যা শিশুটি। এ সময় শিশুটির বাবার আপন খালাতো ভাই রফিকুল শিশুটিকে লিচু দেওয়ার কথা বলে তার ঘরে ডেকে নেয় এবং বাড়িতে সবার অনুপস্থিতিতে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। শিশুটির মা বিকাল অনুমান ৩.০০ ঘটিকার সময় শিশুটিকে গোসল করানোর জন্য খুঁজতে থাকলে এবং ডাকাডাকি করতে থাকলে আসামী রফিকুলের ঘর থেকে শিশুটির কান্নার শব্দ শুনতে পায়। শিশুটির মা তখন রফিকুলের ঘরে গিয়ে শিশুটিকে পায়। ধর্ষক রফিকুল তখন শিশুটির মাকে জানায় যে লিচু দেওয়ার জন্য শিশুটিকে সে তার ঘরে ডেকে এনেছিল। একপর্যায়ে শিশুটি তার মাকে সব ঘটনা খুলে বললে শিশুটির মা তার আত্মীয় স্বজন এবং পাড়াপ্রতিবেশি সহ গ্রামের লোকদের বিষয়টি জানায়। শিশুটির মা সেই রাতে প্রতিবেশীদের মাধ্যমে বিষয়টি থানায় জানালে শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ আল মামুন তাৎক্ষণিক এস আই শামীম হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ পাঠিয়ে আসামী রফিকুলকে গ্রেফতার করান। শিশুটির মা বাদী হয়ে থানায় আসামী রফিকুলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ইং ১৯/০৫/২০২১ তারিখ শিশুটির ডাক্তারী পরীক্ষা করানো হয় এবং আদালতে তার জবানবন্দি গ্রহণ করানো হয়। আসামী রফিকুলও আদালতে তার দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দেয়।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই শামীম হাসান বলেন, আসামী রফিকুল একজন দুশ্চরিত্র লোক। ধর্ষণের দায়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিকটিমের মা বাদী হয়ে আসামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে।

শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, মঙ্গলবার রাতেই আসামী রফিকুলকে গ্রেফতার করে সকল প্রক্রিয়া শেষে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here