আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন শিল্পীদের পিছনে ফেলে বিশ্বসেরার তালিকায় নাম লিখালেন বলিউড গায়িকা নেহা কাক্কর। এটি এই গায়িকার মুকুটে নতুন পালক। রিয়ালিটি শোয়ে বিচারকের আসন থেকে বলিউডের বিগ বাজেট অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের মঞ্চ, সুরের জাদুতে মাতিয়ে রেখেছেন তিনি। শ্রেয়া ঘোষালের পরই যদি বর্তমান মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে কোনো গায়িকার নাম নেওয়া হয়, নিঃসন্দেহে সেখানে নেহা কাক্করের নাম প্রথম উঠে আসবে। তাকে ঘিরে বিতর্কও কিছু কম হয়নি। ভারতীয় সংগীত দুনিয়ার সেই গায়িকার নামের পাশেই এবার যোগ হলো নয়া খেতাব। এশিয়া সেরা গায়িকার খেতাব জিতলেন নেহা কাক্কর। সম্প্রতি ExActs _Charts নামক এক সংস্থার তরফে সারা বিশ্বের নারী  শিল্পীদের জনপ্রিয়তার ভিত্তিতে এক রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে।

সেই তালিকায় ‘মোস্ট ভিউয়ড’ মহিলা আর্টিস্টদের প্রথম দশের পরিসংখ্যানে নাম রয়েছে নেহা কাক্করের। তাও আবার তালিকার দ্বিতীয় স্থানেই। শীর্ষস্থানে রয়েছেন কার্ডি বি। বিশ্বের তাবড় গায়িকাদের পিছনে ফেলে দিয়ে ইউটিউবে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন নেহা। অর্থাৎ ২০১৯ সালে সারা বিশ্বে যেসব নারী  শিল্পীর কাজ সব থেকে বেশি দেখা হয়েছে, নেহা আছেন সেই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে। আরিয়ানা গ্র্যান্ডে, নিকি মিনাজ, সেলেনা গোমেজ এবং বিলি ইলিশকেও পিছনে ফেলে একলাফে এই জায়গায় উঠে এসেছেন বলিউড গায়িকা। তবে হঠাৎ করেই নেহার এমন জনপ্রিয়তার শিখরে ওঠার কারণ হচ্ছে ভারত এবং প্রতিবেশী দেশগুলিতে তার একটা বিরাট সংখ্যক শ্রোতা আগে থেকেই রয়েছে। তবে, সম্প্রতি ইউটিউবে মুক্তি পেয়েছে নেহার ‘গোয়া বিচ’। যেখানে তার সঙ্গে গান গেয়েছেন ভাই টনি কাক্কর। সেই গানের সুবাদেই ১৮০ মিলিয়ন মানুষের মন জিতে নিয়েছেন নেহা।
সাম্প্রতিকতম রিপোর্ট অনুযায়ী, ইউটিউবে নেহার দর্শকসংখ্যা মোট ৪.৫ বিলিয়ন। এই বিরলতম সাফল্যকে এককথায় মাইলফলকও বলা যেতে  পারে নেহার কেরিয়ারে। কারণ খুব কম সংখ্যক ভারতীয় গায়ক-গায়িকাই ইউটিউবে এমন দর্শকসংখ্যা পেয়েছেন এযাবৎকাল! স্বাভাবিকভাবেই এই সংবাদে উচ্ছ্বসিত নেহা কাক্কর। আবেগাপ্লুত গায়িকা সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই রিপোর্ট পোস্ট করে নিজেই জানান দিয়েছেন এই সুখবর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here