দৃষ্টি২৪ডেস্ক: রমজানে মুসলিমদের জন্য ৫ লাখ বেলার হালাল খাবার সরবরাহ করবে নিউ ইয়র্ক শহর কর্তৃপক্ষ। শহরের মেয়র বিল দা ব্লাসিও বলেন, শহরের একটি কর্মসূচির আওতায় মুসলিমদের এই খাবার সরবরাহ করা হবে। এই কর্মসূচির মাধ্যমে খাবার কিনতে পারবেন না এমন ২০ লাখ বাসিন্দাকে খাবার দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে শহর কর্তৃপক্ষ। এ খবর দিয়েছে ব্লুমবার্গ।

খবরে বলা হয়, শিক্ষা বিভাগের বিভিন্ন ভবনে বিতরণ করা হবে ৪ লাখ বেলার হালাল খাবার। বাকি খাবার কমিউনিটি-ভিত্তিক সংগঠনের মাধ্যমে বিতরণ করা হবে। মুসলমানদের রমজানের খাবার দেওয়ার পাশাপাশি ইহুদীদের জন্য কোশারের খাবারও সরবরাহ করে নিউ ইয়র্ক।
এই কর্মসূচির আওতায় ৪৩৫টি স্থাপনায় ও ট্যাক্সির মাধ্যমে ১ কোটি বেলার খাবার সরবরাহ করা হয়েছে। এজন্য শহরের ব্যয় হয়েছে ১৭ কোটি ডলার। মেয়র ব্লাসিও বলেন, “রমজানের সবচেয়ে মহৎ আহ্বানগুলোর একটি হচ্ছে ক্ষুদার্তকে খাবার দাও।
যাদের প্রয়োজন তাদের কথা স্মরণ করা। কিন্তু এই কাজ এখন আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে কঠিন কারণ মানুষ এখন মসজিদেও যেতেও পারছে না।”

শহর কর্তৃপক্ষ আশঙ্কা করছেন যে খাদ্য সংকট আরও চরম রূপ নিতে পারে। মেয়র ধারণা করছেন যে, কভিড-১৯ মহামারির কারণে শহরজুড়ে যেই লকডাউন আরোপ করা হয়েছে, সেই কারণে ৪ লাখ ৭৫ হাজার মানুষ কর্মসংস্থান হারাবেন।
তিনি আরও বলেন, তার কার্যালয়ের কর্মকর্তারা এই মাসের মধ্যে ১ কোটি ও মে মাসে ১.৫ কোটি বেলার খাবার সরবরাহ করার লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছেন। শেষ পর্যন্ত এই কর্মসূচির ব্যয় কেমন হবে, তা তিনি জানাননি। কিন্তু তার ভাষ্য, “নিউ ইয়র্কের কোনো বাসিন্দা ক্ষুদার্ত থাকবে না। আপনার শহরই আপনার পাশে থাকবে।”

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে নিউ ইয়র্কে রমজান শুরু। শেষ হবে ২৩শে মে সন্ধায়। এই সময় মুসলিমদের জন্য আধ্যাত্মিক ভাবনা ও আত্মশুদ্ধির সময়। এরই অংশ হিসেবে সূর্যাস্ত থেকে সূর্যদয় পর্যন্ত রোজা রাখে মুসলিমরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here