শত্রুতার জেরে ধুনটে পায়ে হাটা সড়ক বন্ধ 

0
336

রাকিবুল ইসলাম , ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি:

বগুড়ার ধুনটে সাধারণ মানুষের পায়ে হাটা সড়ক টিনের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে প্রতিপক্ষ।

উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের শিয়ালী গ্রামের সোনাহাটা বাজার এলাকার পাকা সড়ক সংলগ্ন এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বুধবার (২৪ জুন) ৫ জনকে বিবাদী করে ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করে মৃত মশিউর রহমান মোল্লার ছেলে রবিউল আলম।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত ২০১৯ সালের ডিসেম্বার মাসে প্রতিবেশীদের সাথে পায়ে হাটা সড়ক নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয়। ওই বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষগণ অভিযোগের বাদি রবিউল আলমকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এর এক পর্যায়ে বিবাদিগন ক্ষিপ্ত হয়ে বাদি ও তার পরিবারকে মারধর করে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ভাবে একাধিক বার শালিসী বৈঠক হয়। বৈঠকে মিমাংসা না হওয়ায় রবিউল আলম গত বছরের ডিসেম্বার মাসে জেলা বগুড়ার জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করে। মামলা চলাকালীন সময়েই প্রতিপক্ষগন বাড়ির সিমানার অংশ অন্যত্র বিক্রি করে।

এলাকাবাসিরা জানান, স্থানীয় এলাকার কৃষকগনসহ অনেকেই ওই সড়ক দিয়ে চলাচল করে। দির্ঘদিন ধরে চলাচলের ওই সড়কটি বন্ধ করে দেওয়ায় ওই বাড়ির সদস্যগন ও স্থানীয় অনেকেরই চলাচলের বিঘ্নেরর সৃষ্টি হয়েছে।

একাধীক বার মিমাংসার জন্য বৈঠকের পরেও কোন সমাধান হয়নি। সম্প্রতি সড়কটিতে টিনের বেড়া দেওয়ায় আমি শিয়ালী গ্রামের গেদা তরফদারের ছেলে ইমদাদুল হক, রুবেল হোসেন, হেলাল মিয়া, হান্নান মিয়া ও জাহাঙ্গীর আলমকে বিবাদি করে ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বৃহস্পতিবার বিকেলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার মহন্ত জানান, বৃহস্পতিবার সোনাহাটা বাজার এলাকায় পায়ে হাটা সড়ক কেন্দ্রীক ওই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অভিযোগ পত্রে উল্লেখিত বিষয়াদি খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here