সুদের টাকা না দেয়ায় হাত ভেঙ্গে দিল দাদন ব্যবসায়ী

0
253

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি:

বগুড়ার শাজাহানপুরে সুদের টাকা না দেয়ায় আবুল কালাম (৪৫) নামে এক দরিদ্র রিকশা চালককে বেদম মারপিট করে এক হাত ভেঙ্গে দিয়েছে এক দাদনব্যবসায়ী।

এঘটনায় ওই রিক্রাচালক শাজাহানপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিন গিয়ে জানা যায়, উপজেলার খরণা ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া উত্তরপাড়ার মৃত সোলাইমান আলীর ছেলে আবুল কালাম অভাবের তাড়নায় একই ইউনিয়নের উমরদীঘি গ্রামের মনতেজার রহমানের ছেলে দাদনব্যবসায়ী ফরহাদ হোসেনের (৩৫) কাছ থেকে সুদের উপর টাকা নিয়ে কাঁচা তরিতরকারীর ব্যবসা করে সংসার চালাতেন। করোনার কারণে সময় মত সুদের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় দাদনব্যবসায়ী ফরহাদ হোসেন গত সোমবার রাতে উমরদীঘি ষ্ট্যান্ডে রিক্রাচালক আবুল কালামকে বেদম মারপিট করে এক হাত ভেঙ্গে দিয়েছে। এঘটনায় থানায় অভিযোগ দেয়ার পরও থানা পুলিশ এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন স্থানীয়রা।

আবুল কালাম জানান, ৫-৬ মাস পুর্বে দাদনব্যবসায়ী ফরহাদ হোসেনের কাছ থেকে মাসে শতকরা ৫০ টাকা হারে ১৫ হাজার টাকা সুদের উপর নিয়ে উমরদীঘি হাটে কাঁচা তরিতরকারীর ব্যবসা করেন। সপ্তাহে দুইদিন মঙ্গলবার ও শনিবার প্রতি হাটে পাঁচশত টাকা করে সুদের টাকা পরিশোধ করতেন। এভাবে ৩৩ হাজার পাঁচশত টাকা শোধ করেছেন। কিন্তু করোনার কারণে ব্যবসা ভাল না হওয়ায় বর্তমানে তিনি তরিতরকারীর ব্যবসা ছেড়ে রিক্রা-ভ্যান চালিয়ে কোন রকমে সংসার চালিয়ে আসছেন। মাস খানেক আগে থেকে সুদের টাকা দিতে না পারায় দাদনব্যবসায়ী ফরহাদ হোসেন বিভিন্ন ধরনের হুমকি-ধামকি দিতে থাকে এবং আরো ৪৫ হাজার টাকা দাবী করে। এমতাবস্থায় সোমবার সন্ধায় রিক্রাচালিয়ে বাড়ি ফেরার পথে উমরদীঘি স্ট্যান্ডে তাকে দাদনব্যবসায়ী ফরহাদ হোসেন লাঠিসোটা দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে ডান হাত ভেঙ্গে দেয়। এতেও ক্ষ্যান্ত হয়নি ফরহাদ হোসেন। টাকা পরিশোধ না করা পর্যন্ত মারপিট চলতেই থাকবে বলে হুমকি-ধামকি দেয়ায় ভয়ে ঘর থেকে বের হতে পারছেন না তিনি।

তিনি আরো জানান, ঘরে বিবাহযোগ্য মেয়ে রয়েছে। হাত ভেঙ্গে ঘরে পড়ে থাকায় উপার্জনের অভাবে দুঃচিন্তায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। অপরদিকে দাদনব্যবসায়ী ফরহাদ হোসেনের ভয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন তিনি।

স্থানীয়রা জানান, ফরহাদ হোসেন অনেকের কাছে সুদের উপর টাকা দিয়ে একটু এদিক সেদিক হলেই বিভিন্ন ধরনের হুমকি-ধামকি ও ভয়-ভীতি দেখায়। সরকারদলীয় কর্মীর পরিচয়ে এলাকায় ত্রাসের সৃষ্টি করেছে ফরহাদ হোসেন। তার ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। রিক্রাচালক আবুল কালামকে মারপিটের ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেয়ার পরও থানা পুলিশ কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না।

দাদনব্যবসায়ী ফরহাদ হোসেন জানান, আবুল কালামকে ৩০ হাজার টাকা ধার দেয়া হয়েছিল। সেই টাকা চাইলে বিভিন্ন লোকজনের মাধ্যমে তালবাহানা করে। তাকে সুদের উপর টাকা দেয়া হয়নি।

শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দীন জানান, তদন্ত চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here