বগুড়ার সোনাতলায় বসতবাড়িতে হামলার পর সিমানা দখল করে নিয়েছে প্রতিপক্ষরা। মামলার পরেও হামলা ও প্রাণের ভয়ে পুরুষশূন্য পরিবারে শিশু এবং নারীরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

উপজেলার গোসাইবাড়ী গ্রামে বাড়ির সিমানা ও রাস্তা নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় বাড়ি-ঘড় ভাংচুর ও লুটপাট এবং উভয় পক্ষের ৬ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বসতবাড়িতে হামলার পর বাড়ির সিমানা দখল করে নিয়েছে প্রভাবশালী প্রতিবেশি। প্রতিপক্ষের হামলায় বসতবাড়ি ভাংচুর, নারীর শ্লীলতাহানি ও লুটপাটের অভিযোগ থাকলেও গ্রামবাসী মুখে কুলুপ এটে বসেছে। এদিকে নিজেদের নিরাপত্তায় থানায় মামলা করলে, দলীয় প্রভাব খাটিয়ে নিজ দলের মহিলা নেত্রী ও তার পরিবারকে কোনঠাসা করে বিভিন্ন হুমকি ধামকি অব্যাহত রাখার অভিযোগ উঠেছে।

মামলার পরও হামলা ও প্রাণের ভয়ে পুরুষশূন্য পরিবারের শিশু এবং নারীরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে উল্টো মামলা-হামলার আশংকার প্রভাব ফেলছে পরিবারের ভুক্তভোগী ও স্বজনদের  উপরও।

এ ঘটনায় মোছাঃ পারভীন বেগম বাদি হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে সোনাতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সুত্রে ও সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, গত রবিবার ২৬ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭টার দিকে সোনাতলা উপজেলার গোসাইবাড়ী গ্রামে জমি জমার বিরোধ নিয়ে মোছাঃ পারভীন বেগমের বসতবাড়ীতে হামলা চালায় একই গ্রামের মোঃ ইনছান আলীর ছেলে মোঃ মিনারুল ইসলাম (৩৩), তার ভাই মোঃ ফারুক মিয়া (৩৫) ও মোঃ মোনাহার (৪০), মোঃ ওয়াহেদ আলীর ছেলে মোঃ মিম (২২), মোঃ মুন্নু মিয়ার ছেলে মোঃ মহব্বত আলী (২১), মৃত জিলে প্রাং এর ছেলে মোঃ তাজুল (৪১), মৃত আকিম উদ্দিনের ছেলে মোঃ এমদাদুল (৫২), মোঃ দুলু মিয়ার ছেলে মোঃ মিঠু মিয়া (৩০), মৃত আব্দুলের ছেলে মোঃ লেবু (২৫), মৃত নইবরের ছেলে মোঃ দুলা মিয়া (৪৫) ও মৃত আব্দুলের ছেলে মোঃ আপেল মিয়া।

মোাছঃ পারভীন বেগম অভিযোগে আরো উল্লেখ করেন, পূর্বপরিকল্পিত ভাবে অভিযুক্তরা তাদের উপর হামলা করে তার স্বামী ও সন্তানকে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে শ্লীলতাহানি করে তাদের ৪টি ঘাড়ে ভাংচুর চালিয়ে লুটপাট করে নিয়ে যায়।

এ সময় ঘড়ের বাক্সে থাকা নগদ ১ লক্ষ টাকা ও ৮ আনা ওজনের স্বর্ণের চেইনসহ বাড়িতে লুটপাট করে নিয়ে যায়। এতে প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয় তাদের। এ ঘটনায় গ্রামে বিচার না পেয়ে প্রশাসনের দ্বারস্থ হলে পক্ষ পাতিত্ব করছে সরকার দলীয় প্রভাবশালী গ্রুপের সদস্যরা। বিগত দিনে মাঠে জীবন বাজিরাখা পরীক্ষিত নেত্রী আজ অসহায় নিজ দলের সন্ত্রাসীদের কাছে। এজন্য দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সঠিক বিচার প্রার্থনা করেন  পারভীন বেগম।

সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আব্দুল্লাহ- আল মাছউদ চৌধুরী জানান, ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগে একটি মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here