স্বামীর দেয়া আগুনে দগ্ধ সাথী এখন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে

0
675
নিজস্ব প্রতিবেদক: 

বগুড়ার ধুনটে যৌতুকের টাকা না দেওয়ায় গৃহবধূ সাথীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এমনটি অভিযোগ করেছে সাথীর পরিবার।

বগুড়ার ধুনট উপজেলার গোসাইবাড়ী ইউনিয়ন এর জোড়খালী গ্রামের শাহজাহান আলীর কন্যা সাথী বেগম। তিন বছর আগে তার বিয়ে হয় পার্শ্ববর্তী গ্রাম গজারিয়ার রফিক উদ্দিনের ছেলে সাজুর সাথে।

বিয়ের কিছুদিন যেতে না যেতেই সাথীর স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন যৌতুকের জন্য বিভিন্নভাবে চাপ প্রয়োগ করতে থাকে। এ ব্যাপারে বেশ কয়েকবার দু’পক্ষের পরিবারের মধ্যে সালিশ বৈঠক হয়।

গত বছর যৌতুকের টাকা বাবদ সাথীর পরিবার হতে ৭০ হাজার টাকা ও কিছু গহনা দেন সাথীর পরিবার।

কিন্তু স্বামী সাজু ও তার পরিবার আবারও যৌতুকের জন্য চাপ দেয় এবং সাথীকে বিভিন্ন হবে নির্যাতন করতে থাকে।

এক পর্যায়ে সাথীর পরিবার যৌতুকের টাকা দিতে রাজি না হাওয়াই গত ২৩শে আগস্ট সাথীর উপর বিভিন্ন অমানুষিক নির্যাতন শুরু করে এবং এক পর্যায়ে তার শরীরে আগুন লাগিয়ে দেয়। এমনটি অভিযোগ সাথীর পরিবারের।

বর্তমানে সাথী বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে সাথী বেগম।

এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান সাথীর পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here