নিজস্ব প্রতিবেদক

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেয়ার জন্য তৈরি করা হচ্ছে কমলাপুর রেলওয়ে হাসপাতাল।

রোববার (২২ মার্চ) রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মোফাজ্জল হক এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে হাসপাতাল। রেলওয়ে হাসপাতাল হলেও এটি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিচালিত। তাই মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে এটি বাস্তবায়ন হচ্ছে।

জানা গেছে, রেলে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের রেলওয়ের হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা দেওয়া হয়। তবে বেশিরভাগ সময়ই এসব হাসপাতালে রোগী থাকে না। তাই জরুরি প্রয়োজনে করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য রেলওয়ের অন্যান্য হাসপাতালও তৈরি রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে। এ ধরনের হাসপাতালের মধ্যে সবচেয়ে বড় কমলাপুর রেলওয়ে হাসপাতাল। তাই এই হাসপাতালটিকেই প্রথম তৈরি করা হচ্ছে। এরই মধ্যে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত করা হয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালে যেসব রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন তাদের মুগদা মেডিক্যাল বা নিকটস্থ কোনো হাসপাতালে স্থানান্তর করা হবে।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, চট্টগ্রামের বক্ষব্যাধি রেলওয়ে হাসপাতালও প্রস্তুত করা হচ্ছে একই উদ্দেশ্যে। এছাড়া করোনা পরিস্থিতি অবনতির দিকে গেলে দেশের পূর্বাঞ্চল ও পশ্চিমাঞ্চলের অন্যান্য রেলওয়ে হাসপাতালগুলোকেও প্রস্তুত করা হবে।

মন্ত্রণালয় সূত্র আরো জানায়, গণপরিবহন হিসেবে রেল চলাচলে এখনো বিধি-নিষেধ আসেনি। তবে যাত্রীদের জন্য বিভিন্ন পরামর্শ ও সতর্কতা জারি করা হয়েছে। রেল স্টেশনগুলোতে থার্মাল স্ক্যানার, হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়া হয়েছে। ট্রেনে জীবাণুনাশক স্প্রে করা হচ্ছে। যাত্রীদের সচেতনতায় প্রচার-প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here